Trending Bangla Blogs

৪৬ কেজি ওজন কমিয়ে নায়িকা হয়েছেন সাইফ কন্যা সারা !

34

বলিউড নায়ক সাইফ আলী খান ও অমৃতা সিংয়ের মেয়ে সারা আলী খান। বলিউডির তরুণ প্রজন্মের নায়িকাদের অন্যতম তিনি। ধীরে ধীরে বাড়ছে জনপ্রিয়তাও। “কেদারনাথ” “সিম্বা” দুটি ছবিতেই তার অভিনয় হয়েছে প্রশংসিত। দুটি ছবিতেই দারুন আকর্ষণীয় এক সাইফ কন্যা সারা কে দেখেছেন দর্শক।  কিন্তু পর্দায় এখন যে সারা খানকে দেখতে পাচ্ছেণ দর্শক কয়েক বছর আগেও কিন্তু সারা এমন ছিলেন না। অবাক হওয়ার মতো বিষয় তখন তার ওজন ছিলো ৯৬ কেজি!

নায়িকা হতে কত কষ্টইনা করেছেন সাইফ কন্যা সারা। মাত্র দেড় বছরের মধ্যে ৪৬ কেজি ওজন কমিয়েন তিনি। হয়েছেন একে বারে ছিপছিপে গড়নের অধিকারী। এখন তার ওজন ৫০ কেজি মাত্র। 

কীভাবে এতো ওজন কমালেন নবাবকন্যা? প্রশ্ন অনেকের মনেই। কঠোরভাবে খাদ্যাভ্যাস নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি নিয়মিত শরীরচর্চার মাধ্যমে এই অসাধ্য সাধন করেছেন ৩২-২৫-৩৪ ফিগারের অধিকারী এই নায়িকা। জনপ্রিয় সারা এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তার ওজন কমানোর জার্নির কথা।

২৫ বছর বয়সী সারা কফি ওইথ করণে জানান, দীর্ঘদিন পলিসিসটিক ওভারিয়ান সিনড্রোমে ভুগেছেন। এই রোগের কারণে তার শরীরের ওজন গিয়ে দাঁড়ায় ৯৬ কেজিতে! হরমোনজনিত এই রোগের কারণে ওজন কমাতে বেশ সমস্যার মুখে পড়তে হয় সারাকে। ওজন কমাতে যথেষ্ট বেগ পোহাতে হয়েছে তাকে। নিয়মিত শরীরচর্চার পাশাপাশি ডায়েটেও অনেক নিয়ম মেনে চলতে হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ মঞ্চেই শ্লীলতাহানীর শিকার নায়িকা ক্রিস্টাল লিউ

সাইফ কন্যা সারা বলেন, ছোটবেলা থেকেই আমি একটু মোটা ছিলাম। যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে গিয়ে আমার ওজন আরও বেড়ে যায়। তবে আমি বেশ খানিকটা ওজন ঝরিয়ে ফেলি শেষের দিকে। নিয়মমাফিক জীবনযাপন আর বেশ কিছুটা ওয়ার্কআউট- এসব কিছুর জন্যই আমি তাড়াতাড়ি শুকনা হতে পেরেছি। শুকনা হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্র থেকে মুম্বাই এয়ারপোর্টে নামার পর প্রথম দর্শনে আমাকে চিনতেই পারেনি আমার মা। ভাগ্যিস সঙ্গে স্যুটকেস টা  ছিল! সেটা দেখেই আমার মা আমাকে চিনতে পেরেছিল। এতটাই বদলে গিয়েছিল আমার চেহারা!     

সাইফ কন্যা সারা এর ডায়েট চার্টের খবরও পাওয়া গেছে। সকালের নাশতায় ইডলি কিংবা পাউরুটির সঙ্গে কুসুম বাদ দিয়ে ডিমের সাদা অংশ খান নায়িকা। দুপুরে খান রুটি, ডাল, তরকারি, সালাদ আর ফল। বিকেলের নাশতায় থাকে সুজি দিয়ে তৈরি উপমা। রাতে খান রুটি আর সবুজ তরকারি। 

Comments are closed.